আমফান বিধ্বস্ত হাওড়া পরিদর্শনে আবারও আজ সুজন ও মান্নান

নিজস্ব সংবাদদাতা,হাওড়াঃ
গত,২০ শে মে ঘূর্ণিঝড় উম্পুনের প্রভাবে কার্যত লন্ডভন্ড হয়েছিল দক্ষিন বঙ্গের বেশকিছু জেলা। ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া হাওড়া জেলার পরিস্থিতি স্বরোজমিনে খতিয়ান দেখতে গত ৩১ শে শ্যামপুর পরিদর্শনে এসেছিলেন সিপিআইএম নেতা সুজন চক্রবর্তী ও বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান,অসিত মিত্র সহ একাধিক ব্যক্তিত্ব। এলাকায় গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি কথা বলেন সাধারণ মানুষের সাথে। শোনেন বিভিন্ন প্রকার অভাব অভিযোগ। ঘটনাস্থল থেকে কলকাতার ফেরার পরই আক্রান্ত হন এক সিপিআইএম সর্মথক। লাঠি দিয়ে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া ঐ বাম কর্মীর। এই ঘটনায় অভিযোগের তীর ওঠে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের বিরুদ্ধে। আজ, সোমবার আবারও উম্পুনে ক্ষতিগ্রস্থ হাওড়ার উলুবেড়িয়া দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বহিরা,হীরাপুর,গড়চুমুক সহ বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনের পাশাপাশি যান শ্যামপুরে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের হাতে আক্রান্ত সিপিআইএম কর্মীর বাড়িতে। পরিবারের পরিজনদের সাথে কথা বলার পাশাপাশি শোনেন তাদের একাধিক অভিযোগ। এই প্রসঙ্গে সুজন বাবু বলেন ” রাজ্যে ও কেন্দ্রে দু জায়গাতেই একটা ফ্যাসিস সরকার চলছে। এই সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের কোন কিছু বলার অধিকার নেই। কোনো কিছু বললে ও প্রতিবাদ করতে গেলে আক্রান্ত হতে হবে। অবিলম্বে দোষীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে প্রশাসনকে। তা নাহলে বৃহত্তর আন্দোলন সংগঠিত করবে বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস কর্মীরা “।
আবদুল মান্নান বলেন ” অসহায় সাধারণ মানুষের দুঃখ ও দুর্দশার কথা শুনতে ও দেখতে এসেছিলাম। ছেলেটি আমাদের সাথে ছিল,তারজন্য সে আক্রান্ত! মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হবে তার। এ কোন রাজ্যে বাস করছি আমরা ? বিরোধী দের রাজনৈতিক কর্মসূচী গ্রহনের কোনো অধিকার নেই।

শেয়ার করুন