আমের বাগান দেখতে গিয়ে দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হলেন আনোয়ার সেখ

মালদাঃ-প্রতিদিন এর মতো আজকেও গিয়েছিলেন নিজের বাগান এর আম দেখতে মালদার ছোট সুজাপুর এর বড়মত্তর এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার সেখ(৪৮)। সঙ্গে গিয়েছিলেন উনারই ভাইপো সাদিকুল সেখ।আর বাগানে আগে থেকেই ছিলেন তার ছেলে এবং তার জামাই। শুক্রবার রাত্রে প্রায় বারোটা নাগাদ একটু বৃষ্টি আশায় আম ব্যবসায়ী আনোয়ার সেখ তার ছেলে এবং জামাইকে বলেন তোমরা মাচানে গিয়ে বসো । আমাদের কাছে ছাতা আছে আমি আর সাদিকুল রাস্তায় বসছি। আর ঠিক সেই ভাবে আনোয়ার সেখ এবং তার ভাইপো সাদিকুল তার ছেলে এবং জামাইয়ের থেকে প্রায় দুই থেকে ৩০০ মিটার দূরে গিয়ে এক রাস্তায় বসে।

পরিবার সূত্রে আনোয়ার সেখের ছেলে শহীদুল্লাহ জানায় আমরা মাচানে বসে ছিলাম, এবং কিছুক্ষণ পরে আমরা একটি গুলির আওয়াজ পাই। ছুটে গিয়ে দেখি প্রায় ১২থেকে ১৩ জন দুষ্কৃতী আমার বাবাকে ও সাদিকুলকে আক্রমণ করেছে।দুষ্কৃতীদের সংখ্যা অনেকজন থাকায় আমরা লুকিয়ে যায় । তারপর দুষ্কৃতী চলে যাওয়ার পরে আমরা সেকানে গিয়ে দেখি আমার বাবার মাথায় গুলি করে মেরে ফেলেছে। এবং সাদিকুল দা কে হাসুয়া দিয়ে পিঠে আঘাত করেছে , হাসুয়া টি ঘুরে যাওয়াই সাদিকুল দা হাসুয়া কোপ থেকে বেঁচে গেলেও তার পিঠে হাসুয়ার দাগ রয়েছে। তারপর আমরা থানায় জানালে মোথাবাড়ি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পুলিশ সুত্রে জানাযায় মৃত ওই ব্যাক্তির নাম আনোয়ার সেখ(৪৮)মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনাকে ঘিরে গোটা এলাকায় আতঙ্ক রয়েছে। পরিবার তরফে একটি লিখিত অভিযোগ দায় করা হয়ে মোথাবাড়ি থানায়। ঘটনায় কে বা কারা জড়িত এই মুহূর্তে জানা যায়নি, তবে ঘটনার পূর্ণ তদন্ত শুরু করেছে মোথাবাড়ি থানার পুলিশ।

শেয়ার করুন