উম্পুনের সতেরো দিন পরেও হাওড়ায় বির্পযস্ত মোবাইল নেটওয়ার্ক

নিজস্ব সংবাদদাতা,হাওড়াঃ
ঘূর্ণিঝড় উম্পুনের পর কেটে গিয়েছে সতেরো দিন আজও বির্পযস্ত বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল নেটওয়ার্ক। এই ঘটনা গ্রামীণ হাওড়ার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে। প্রধাণত গ্রামীণ হাওড়া উদয়নারায়নপুর,আমতা,জয়পুর,জগৎবল্লভপুর,বাউড়িয়া,উলুবেড়িয়া,শ্যামপুর সহ একাধিক এলাকায় কার্যত বির্পযস্ত মোবাইল ইন্টারনেট। বর্তমানে যোগাযোগের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম মোবাইল। দুপুরের পর থেকেই মধ্যরাত্রি পযর্ন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা শিকেয় ওঠায় কার্যত ক্ষোভে ফুঁসছেন এলাকার কয়েকহাজার গ্রাহক। গ্রাহকরা অধৈর্য হয়ে গ্রাহক সেবা কেন্দ্রগুলিতে ফোন করলেও মেলে না সঠিক তথ্য। যখনই ফোন করা হোক না কেন তখনই নামি কোম্পানি গুলির ইনভোয়েস থেকে ভেসে আসে” আপনার এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা সাময়িক ধীর গতিতে চলায় আপনি ভিডিও কলে বাধার সম্মুখীন হতে পারেন আগামী তিন ও চার ঘন্টায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে “। এই অভিযোগ এই সমস্ত এলাকার বহু গ্রাহকের। তাদের আরও দাবি এই সমস্যা দীর্ঘমেয়াদি এবং গত দু বছরের দিনে ওয়ান জিবি করে ডাটা দেওয়ার কথা থাকলেও সারাদিনে তিনশো এমবি শেষই হয় না। জমে থাকা ডেটা থেকেও করা যায় না পরবর্তী মাসের রিচার্জ। গ্রাহকদের আরও বলেন গ্রামের প্রান্তিক মানুষরা এই ২০০ – ২৫০ টাকার জন্য কী দশ হাজার টাকার মামলায় করব,কোথায় পাবো এই খরচ। সরকার এবিষয়ে নজর দিচ্ছেনা বলে মোবাইল সংস্থা গুলির এই বার বাড়ন্ত বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।
কবে হবে স্থায়ী সমাধান? কবে ঘুঁচবে ইন্টারনেট সমস্যা?
সেদিকে তাকিয়ে গ্রামীণ এলাকার প্রান্তিক কয়েকহাজার মানুষ।

শেয়ার করুন