কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের ভেতর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার পরিযায়ী শ্রমিক

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর:-কোয়ারেন্টাইন সেন্টার এর ভেতর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার পরিযায়ী শ্রমিক। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশিয়াড়ি থানার তারাপুর এলাকায়। শনিবার কুলিয়াড় মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রের পিছনে থাকা এক বাথরুমের ধার থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় সনাতন সিং নামে এক ব্যক্তি কে। তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কেশিয়াড়ী ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র পরে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। জানা গিয়েছে, জানা গেছে শুক্রবার দুপুরে পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা থেকে এলাকায় ফেরে পাঁচজন পরিযায়ী শ্রমিক। গ্রামে না ঢুকতে দেওয়ায় পাঁচজনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয় স্থানীয় এই স্কুলে। শনিবার দুপুরে হঠাতই করেন সনাতন সিং এর বাড়ির লোক খাওয়ার দিতে এসে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে তাকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। এরপর স্কুলের পিছনে বাথরুমের পাশ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় তাকে। আহত ব্যক্তির পাশ থেকে উদ্ধার হয় ভাঙ্গা মদের বোতল। স্বামীকে খুনের চেষ্টা করা হয়েছে এমনটাই অভিযোগ আহত পরিযায়ী শ্রমিক সনাতন সিংহের স্ত্রী রেবতী সিং এর। ঘটনার পিছনে ঠিক কি কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে কেশিয়াড়ি থানার পুলিশ। কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের ভেতরে পরিযায়ী শ্রমিককে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করার ঘটনায় করেন্টিন সেন্টারে নিরাপত্তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

শেয়ার করুন