ছোটো মুসুর ডালের উপর জাতীয় পতাকা এঁকে কাকদ্বীপ মহকুমায় প্রথম ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস এ নাম তুললো উদ্ভিদবিদ্যার ছাত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা:
দেশজুড়ে লকডাউন, তার মধ্যেই এলো সুখবর। কাকদ্বীপ মহকুমার সাগর ব্লকের রাধাকৃষ্ণ পুর গ্রামের সুমন হাজরা, নিজের নাম তুললো “ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ড“ এ।সুমন মনসাদ্বীপ রামকৃষ্ণ মিশন উচ্চবিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক,পরে রুদ্রনগর দেবেন্দ্র বিদ্যাপীঠ থেকে উচ্চমাধ্যমিক দিয়ে আপাতত পশ্চিম মেদিনীপুরের সবং সজনীকান্ত মহাবিদ্যালয়ে উদ্ভিদবিজ্ঞানের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। ছবি আঁকা নিয়ে প্রতিষ্ঠানিক বিদ্যা অর্জন না করলেও নিজের চেষ্টায় তা এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। সম্প্রতি একটি ছোট্ট মুসুরের দানার ওপর ভারত বর্ষের জাতীয় পতাকার ছবি আঁকে এবং তা রেকর্ডের জন্য পাঠান।এটি তাঁর দ্বিতীয় প্রচেষ্টা ছিল,সময় লেগেছে প্রায় তিন মিনিট।মার্চ মাসে তা নির্বাচিত হয় তবে লকডাউনের জন্য থমকে যায় সব কাজ, জুলাইয়ে সার্টিফিকেট হাতে পান।এই রেকর্ডের জন্য খুশি সুমনের পরিবার পরিজনেরা, ফোন করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তার স্কুলের স্যারেরা,কলেজের প্রফেসরেরা।এই রেকর্ড কাকদ্বীপ মহকুমায় প্রথম। সুমন জানায়,“গ্রাফিক্সের কাজ,বইয়ের কভারের ছবি আঁকা নিয়ে কাজের সময় অনেক শিল্পীর সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়া তে পরিচয় হয়, সেখানে থেকেই খোঁজ পাই রেকর্ডের,তার পর চেষ্টা করি,প্রথমে হয়নি, বাতিল হয়েছে, দ্বিতীয় বার চেষ্টা করি,ওটা ঠিক হয় আর রেকর্ডের জন্য সিলেক্ট হয়। পরবর্তী সময়ে স্পনসর পেলে আরও রেকর্ডের জন্য চেষ্টা করবো।“আমাদের এসপ্লাস নিউজের পক্ষ থেকে সুমনের জন্য রইল অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

শেয়ার করুন