জঙ্গলমহলের রাজনীতিতে সক্রিয় ছত্রধর মাহাত


নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: জঙ্গলমহলের সক্রিয় রাজনীতিতে ছত্রধর মাহাত ! বুধবার গোপীবল্লভপুর ১নম্বর ব্লকের গোপীবল্লভপুর বাজার এলাকায় হাটিবাড়ি রাস্তায় গোপীবল্লভপুর ১নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীসভা হয় । এদিনের এই  কর্মী সভায় উপস্থিত ছিলেন পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী জনসাধারণ কমিটির প্রাপ্তন নেতা ছত্রধর মাহাত । গোপীবল্লভপুর ব্লকের সাতমা গ্রাম পঞ্চায়েতের সাতমা গ্রাম থেকে প্রায় ৩০টি পরিবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে বলে তৃণমূলের দাবি । তাঁদের হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলেদেন ছত্রধর মাহাত । ছত্রধর মাহাত এদিন বলেন , আমাদের দল বা তৃণমূল কংগ্রেস এখানে অনেক খানি পিছিয়ে পড়েছে । আজকের এই উৎসাহ দেখে আমার মনে হয় পিছিয়ে পড়া বলে কিছু হয় না । কারন মানুষেই গড়তে পারে, তৈরি করতে পারে ,মানুষের পরিবর্তন আনতে পারে । ছত্রধর মাহাতোর এই কথার পরেই তার কথার মধ্যে উঠে আসছে তিনি তৃণমূল কর্মী । 

টানা দশ বছর জেল খাটার পর এবছরের ২ই ফেব্রুয়ারি জেল থেকে মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ছত্রধর মাহাতো । সেদিন ছত্রধর মাহাতো বলেছিলেন তিনি এই মুহূর্তে সক্রিয় রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন না। অনেকদিন পর মুক্ত আকাশ দেখলেন এখন কিছুটা সময় পরিবারের লোকের সঙ্গে কাটাতে চাই । তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঝাড়গ্রাম জেলার পর্যবেক্ষকের দায়িত্বে থাকায় বারেবার ঝাড়গ্রাম এসেছেন। সেই সময় ছত্রধর মাহাতো ও তার স্ত্রী নিয়তি মাহাতো একাধিকবার পার্থ চট্টোপাধ্যায় সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং বৈঠক করেছেন । কিছুদিন আগে ছত্রধরের স্ত্রী নিয়তি মাহাত পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নারী ও সমাজ কল্যাণ দপ্তর এর কমিটির স্থায়ী সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হন । তারপরে এদিন তৃণমূলের কর্মী সভায় যোগদান পর্বের পর ছত্রধর মাহাতোর এই বক্তব্য কে কেন্দ্র করে জঙ্গলমহলে শুরু হয়েছে তুমুল জল্পনা।  তবে কি ছত্রধর মাহাতো সক্রিয় রাজনীতিতে নামছে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে !

এদিন ছত্রধর মাহাতো বিজেপিকে নিয়ে বলেন , এখানে একটি সাম্প্রদায়িক দল রয়েছে যারা কখনো পশ্চিমবঙ্গ ক্ষমতায় আসতে পারবে না । 

শেয়ার করুন