জলপাইগুড়িতে অযাচিত কারণে রাস্তায় বেরোনোর উপহার স্বরূপ মিলল ডিএসপির লাঠিচার্জ

ভাস্কর চক্রবর্তী, জলপাইগুড়িঃ রাজ্যের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল সোমবার অর্থাৎ ২৩শে মার্চ বিকেল ৫টার পর থেকে রাজ্যে লক ডাউন জারি করা হবে। যথারীতি সেই মত সোমবার থেকেই রাতারাতি লক ডাউন চালু হয়ে যায় গোটা রাজ্যে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই লক ডাউনের প্রথম দিনে ভালোই প্রভাব পড়ে। সারাদিন শহরের ব্যস্ততম রাস্তাগুলি ছিল জনমানবহীন। কিন্তু কিছু সব জান্তা মানুষদের জন্য রাতারাতি সারাদেশে প্রধানমন্ত্রী অঘোষিত ১৪৪ ধারা অর্থাৎ নির্ধারিত সময়ের সংশোধন করে লক ডাউনের সময়সীমা ২১ দিন আরও বাড়িয়ে দেন। লক ডাউনের দ্বিতীয় দিনে সেই নিয়ে কিছু মানুষ উদবিনগ্ন স্বরূপ নিয়ম না মেনেই রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ক্রয় করতে। সেই সুযোগ বুঝে কিছু অসাধু মানুষজন ভিড় জমিয়েছেন রাস্তার মোড়ে, চায়ের দোকানে। এদিকে তৎপর পুলিশ প্রশাসন। জনগণকে সব রকমের সুরক্ষা প্রদানে। কিন্তু এই সীমা অতিক্রম করে ফেলায় শ্রী ঘরে যেতে হয়েছে অনেক মানুষকে। খেয়েছে পুলিশের লাঠি পেটাও। এরকমই দক্ষ পুলিশের পরিচয় পাওয়া গেল জলপাইগুড়িতে। ডিএসপি নেতৃত্বে চলল অভিযান। অযাচিত কারণে রাস্তায় দেখলেই চলল লাঠিচার্জ। এই ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই নেটিজেনদের একাংশ সাধুবাদ জানিয়েছেন ডিএসপির এই কাজকে।




%d bloggers like this: