তৃণমূল কংগ্রেসের কার্য্যালয়ের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে কৃতি ছাত্র -ছাত্রী দের সম্বর্ধনা জ্ঞাপন ও দুস্থ মহিলা দের বস্ত্র বিতরণের অনুষ্ঠান

সোনারপুর, সেখ নুরুদ্দিন: সোনারপুর ব্লকের কালিকাপুর ১নং তৃণমূল অঞ্চল কংগ্রেসের সম্পাদক তথা সোনারপুর পঞ্চায়েত সমিতির শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ ইয়াকুব মোল্লা ও কালিকাপুর ১নং অঞ্চলের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা কালিকাপুর ১নং পঞ্চায়েতর প্রধান মাধব চন্দ্র মন্ডল মহাশয়ের উদ্যোগে চাকবেড়িয়া বাদাম তলা বাসস্ট্যান্ডে তৃণমূল পার্টি অফিস সংলগ্ন একটি হল ঘরে আয়োজিত হয়েছিল কৃতি ছাত্র ছাত্রীদের সম্বর্ধনা ও বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের। এই অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ হয় গান্ধীজী কে মাল্যদান ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বহু গুণীজন। বিদগ্ধ ব্যক্তিদের উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, চিন্তাবিদ, দার্শনিক মুন্সী আবুল কাশেম, বিশিষ্ট কবি ও সমাজ সেবক মীর মহঃফিরোজ, সোনারপুর পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ, দিলীপ ঢালি, কালিকাপুর ১নং অঞ্চলের প্রধান মাধব মন্ডল। সমস্ত অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন সোনারপুর পঞ্চায়েত সমিতির শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ ইয়াকুব মোল্লা। অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ হয় বিকেল ৪টায়। অনুষ্ঠান পরিচালিত হয় রাত ৮টা পর্যন্ত। অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক কৃতি ছাত্রদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কালিকাপুর স্কুলের অগ্নিভ রায়(662), শিশু বিকাশ একাডেমির ইন্দ্রনীল (638) ,বিশ্বভারতীর অর্ণব মন্ডল। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি ছাত্রমন্ডলীদের মধ্যে সম্বর্ধিত করা হয় শিশু বিকাশের সাহিল সাঁফুই, মুন্সী মিরাজ, নাকিব হোসেন কে, কালিকাপুর স্কুলের সৌভিক নস্কর, রৌনক আলম,মুন্সী কাইফুর ও আরো অনেক কে। কৃতী ছাত্র ছাত্রী দের উদ্দেশ্যে কালিকাপুর ১নং অঞ্চলের প্রধান সাহেব ও সোনারপুর পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ ইয়াকুব মোল্লা দুস্থ মেধাবী ছাত্র ছাত্রী দের পাশে এগিয়ে চলার জন্য সর্ববিধ সাহায্যের আশ্বাস দেন। প্রসঙ্গত বক্তব্যের মাধ্যমে বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেধা প্রকল্পের কথা। স্থানীয় ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা র গতি যাতে থেমে না থাকে,তার জন্য সর্বদা দলীয় ও প্রশাসনিক সাহায্য,সুপারিশের প্রয়োজন হলে অবশ্যই করবেন এবং পাশে থাকবেন বলে জানান। শিক্ষাবিদ মুন্সী কাশেম সাহেব শিক্ষার গুরুত্ব বৃদ্ধির জন্য অভিভাবক কে সচেতনতার বার্তা দেন। অধ্যাপক মুন্সী রাকিব বলেন “স্থানীয় মেধা যাতে হারিয়ে না যায় তার জন্য কেরিয়ার কাউন্সিলিং করার প্রস্তাব দেন।। এই অনুষ্ঠানে সম্বর্ধনা দেওয়া হয় ৪৩ বছরে মাদ্রাসা বোর্ড থেকে সংসার ও সব প্রতিকুল জয় করে এক মুসলিম মহিলা কে। তার অদম্য চেষ্টা কে কুর্নিশ জানিয়েছেন কালিকাপুর ১নং পঞ্চায়েতর প্রধান ও সোনারপুর পঞ্চায়েত সমিতির শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ ইয়াকুব মোল্লা। এই সম্বর্ধনাঅনুষ্ঠানের আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ ছিল বস্ত্র বিতরণ। আগমনীর আগে গরীব মানুষের হাতে বস্ত্র প্রদান করা হয়। গ্রামের গরীবের মানুষের মাঝে এই প্রাপ্তিতে আনন্দের ঢল নেমেছে। এই অনুষ্ঠান ছিল উপচে পড়া ভিড়। এলাকায় যুব দলীয় কর্মীরা মাস্ক ও স্যনিটাইজ বিষয়ে সর্বক্ষণ সতর্ক ছিলেন। উপস্থিত হতে পারেননি আমন্ত্রিত বিধায়ক রা জরুরি প্রশাসনিক কর্মের জন্য।

শেয়ার করুন