তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর:-ফের তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন এলাকা। আহত দুপক্ষের ৬, আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৩ জন চিকিৎসাধীন মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে বচসার সূত্রপাত হয় বুধবার সকালে। সাময়িকভাবে মিটে গেলেও বুধবার রাতে লাঠি রড নিয়ে বিজেপি কর্মীদের ওপর তৃণমূল অতর্কিতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জখম হয় চার বিজেপি কর্মী। আহতদের প্রথমে দাঁতন গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুজনকে স্থানান্তরিত করে দেওয়া হয় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
অপরদিকে বিজেপির পাল্টা মারে আহত হয় দুই তৃণমূল কর্মী। আহত তৃণমূল কর্মীদের ও নিয়ে যাওয়া হয় দাঁতন গ্রামীণ হাসপাতালে। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে এক তৃণমূল কর্মীর মাথা পাঠায় তাকে সাথে সাথে স্থানান্তরিত করা হয় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। বিষয়টি নিয়ে বিজেপির জেলা সভাপতি শমীত কুমার দাস এর অভিযোগ, পুলিশের প্রশয়েই তাদের দলীয় কর্মীদের মারধর করেছে তৃণমূল। গোটা ঘটনার পিছনে পুলিশকে দায়ী করে তীব্র ভাষায় রচনা করেছেন জেলা বিজেপির সভাপতি।
অন্যদিকে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতির দাবি, তৃণমূল কর্মীদের ওপর প্রথমে হামলা চালিয়েছে বিজেপি কর্মীরা, এরপরেই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে তৃণমূল কর্মীরা।
দুপক্ষই পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে দ্বারস্থ হয়েছে দাঁতন থানার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে দাঁতন থানার পুলিশ। গোটা ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

শেয়ার করুন