তোকে “লকডাউন” করে দেবো,সত্যিই হলো তাই, যুবকের বুকে ছুড়ি গেঁথে দিল দুস্কৃতিরা

প্রসেনজিৎ প্রামাণিক,নদীয়া:হুমকী আসছিল দু দিন আগে থেকেই। গতকাল সন্ধ্যেয় সত্যিই তাই হলো।শান্তিপুর শহরের এক নম্বর ওয়ার্ডের গোডাউনপাড়ার বাসিন্দা বিশাল রাজভর।এলাকার শান্তশিষ্ট ছেলে বলেই পরিচিত। শান্তিপুর পাওয়ার হাউসে অস্থায়ী কাজ করে সে। বিশাল রাজভরের কাকা বুলু রাজভর জানান
“ওই এলাকারই বিরাটাকার হাটের চালার শেষপ্রান্তে প্রায়ই বসে মদের আসর। সেখান থেকে পথচলতি এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কটূক্তি করা হয়। ভাইপো বিশাল সেই নিয়ে প্রতিবাদী হয়েছিল।এর পর থেকেই তাকে কটূক্তি করা হতো, অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও অপমান সূচক কথাবার্তা বলতো মদ্যপ যুবকেরা। গতকাল প্রকাশ্যে বলা হয় বিকেল পাঁচটার পর “লকডাউন” হয়ে যাবি তুই! মানেটা সত্যিই গতকাল সন্ধ্যে ছটার সময় বোঝা গেল !

পাশের এলাকার হরে কৃষ্ণপল্লীর এক মদ্যপ যুবক হঠাৎ হাতে ছুড়ি নিয়ে লকডাউন বলে আক্রমণ করে তাকে। ছুরি গেঁথে দেওয়া হয় বুকে।ছুড়ি ঢুকে যায় পাঁজর ভেদ করে! চিৎকার করতে করতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বিশাল। এলাকাবাসী উদ্ধার করে শান্তিপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে কল্যাণী জে এন এম হাসপাতালে ট্রান্সফার করা হয়। পাশের এলাকার তিন জন যুবকের নামে লিখিত অভিযোগ জানানো হয় শান্তিপুর থানায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন