“দক্ষিণবঙ্গ যদি হয় স্বজন উত্তরবঙ্গ তবে আমার আপন”; শিলিগুড়িতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


ভাস্কর চক্রবর্তী, শিলিগুড়িঃ নবমতম উত্তরবঙ্গ উৎসবের শুভ সূচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার
কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ৪ দিনের উত্তরবঙ্গ সফরের জন্য রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের ৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিদের বঙ্গরত্ন সম্মানে ভূষিত করার জন্য এই বিশেষ আয়োজন। শিলিগুড়ির উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় লাগোয়া শিবমন্দির স্থিত এক খেলার মাঠে এই উৎসবের জন্য মঞ্চ তৈরী করা হয়। বাগডোগরা বিমানবন্দরে নেমে মুখ্যমন্ত্রী প্রথমে শিবমন্দিরে যান। সেখানে উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধন করে ৯জন বিশিষ্ট ব্যক্তির হাতে তুলে দেন বঙ্গরত্ন সম্মান। সেই ৯ জন ব্যক্তি হলেন, রাজেন্দ্র নাথ দাস (আলিপুরদুয়ার), জ্যোতির্ময় রায় (কোচবিহার), বিশ্বনাথ লাহা (দক্ষিণ দিনাজপুর), গণেশ বাহাদুর গিরি (দার্জিলিং), ভারতী ঘোষ (দার্জিলিং-শিলিগুড়ি), শুভম মজুমদার (জলপাইগুড়ি), হেমলতা প্রধান (কালিম্পং), দ্বিজেন্দ্র সরকার (মালদা), মমতা কুন্ডু (উত্তর দিনাজপুর)।

এসবের পাশাপাশি রাজ্য সরকারের তত্ত্বাবধানে ও পূর্ণ সহযোগিতায় নব নির্মীয়মান শিলিগুড়ি জার্নালিস্ট ক্লাব “উত্তরীয়ার” শুভ উদ্বোধন হল মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরেই। মঞ্চ থেকেই কাওয়াখালীতে তৈরী হওয়া জার্নালিস্ট ক্লাবের নতুন বহুতল ভবনের উদ্বোধন করেন।

এরপর তিনি সরাসরি যান পাহাড়ে। সেখানে আগামী বুধবার এনআরসি ও সিএএ বিরুদ্ধে সরব হয়ে তাঁর মিছিল করার কথা রয়েছে। বিনয় তামাং, অনীত থাপার সাথে বসবেন বৈঠকেও। পাহাড়েই ২৩শে জানুয়ারি নেতাজীর জন্মদিন পালন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শেয়ার করুন