দক্ষিণ ২৪ পরগণার কন্টেনমেন্ট জোনে কড়াকড়ি লকডাউন


বাবলুপ্রামানিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা:রাজ‍্য সরকারের নির্দেশ মতন দক্ষিণ ২৪ পরগনার কন্টেনমেন্ট জোন গুলিতে নতুন করে লকডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রশাসন সুত্রে জানা গিয়েছে,দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার তিনটি পুলিশ জেলা সহ ৫টি মহাকুমা এলাকায় কন্টেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে।বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টার পর থেকে সেই সমস্ত এলাকায় কড়াকড়ি ভাবে লকডাউন শুরু হয়েছে। জেলার ৫ টি মহাকুমার মধ্যে আলিপুর সদর মহাকুমার বিষ্ণুপুর,মহেশতলা, বজবজ সহ নোদাখালি এলাকার একাধিক ওয়ার্ড কন্টেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে। বারুইপুর মহাকুমা এলাকার বারুইপুর এর মদারাট গ্রাম পঞ্চায়েত ও শংকরপুর ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা, রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার ১৪,২১,১২ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড, জয়নগর সহ ভাঙড়ের কাশীপুর এলাকার মধ্যে বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা কন্টেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে।বিশেষ করে মহেশতলা এবং রাজপুর-সোনারপুর পুরসভা এলাকায় কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা অনেকটা বেশি। তা ছাড়াও মন্দিরবাজার, মগরাহাট, বিষ্ণুপুরের দুটি ব্লকেও কন্টেনমেন্ট জোন রয়েছে অনেক। দক্ষিণ ২৪ পরগনার তালিকা দেখলেই বোঝা যাচ্ছে পুর এলাকার পাশাপাশি গ্রামাঞ্চল তথা পঞ্চায়েত এলাকাতেও সংক্রমণ ছড়িয়েছে ব্যাপক ভাবে।
ভাঙড়ে কন্টেন্টমেন্ট জোন গুলি হল আলাকুলিয়া মধ্যপাড়া, উত্তর নাংলা, পূর্ব ভোগালী পাড়া, নওয়াবাদ মোল্লা পাড়া, অনন্তপুর কর্মকারপাড়া, পোলেরহাট বাজার, কাশীপুর বাজার, চন্ডীহাট হাজারিপাড়া, শোনপুর বাজার, পানাপুকুর পাড়া, বিজয়গঞ্জ বাজার, পাকাপোল বাজারা, তাড়াহেদিয়া, ভগবানপুর। ক্রমশ বাড়ছে সংক্রমণ। কিন্তু হুঁশ নেই জনতার। ফলে একপ্রকার বাধ্য হয়েই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রুখতে বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই রাজ্যের কন্টেনমেন্ট জোনগুলিতে নতুন করে লকডাউন কার্যকরা করা হয়েছে । আজ সকাল থেকেই পুলিশ টহল দেবে এই সমস্ত কন্টেন্টমেন্ট এলাকা গুলিতে। বাইরে থেকে কোনো মানুষকে যেমন কন্টেন্টমেন্ট এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না পাশাপাশি কন্টেন্টমেন্ট এলাকা গুলি থেকে কোনো মানুষকে বাইরে বেরোতে দেওয়া হবে না। কন্টেন্টমেন্ট এলাকার মানুষদের কোনো কিছু দরকার হলে পুলিশ প্রশাসন কে জানালে তারা সব ব্যাবস্থা নেবে।

শেয়ার করুন