দাঁতনের কুশমীতে তৃণমূল কর্মীর বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর:-
দাঁতন থানার চক ইসমাইলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কুশমী গ্রামে বিজেপি কর্মী পবন জানার মৃত দেহ নিয়ে শনিবার যায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে বিজেপি নেতা ও কর্মীরা।দিলীপ ঘোষ সরাসরি পুলিশকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উস্কানিতে শনিবার বিজেপি কর্মীরা পুলিশের একটি প্রিজন ভ্যানে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। সেই সঙ্গে পুলিশকে লক্ষ্য করে প্রচুর ইট ছোড়া হয় যার ফলে একজন পুলিশ কর্মী গুরুতর আহত হয় তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে পুলিশের প্রিজন ভ্যানটি সম্পূর্ণ ভাবে নষ্ট হয়ে গিয়েছে।ওই ঘটনার ছবি তুলতে গেলে বিজেপি কর্মীরা সাংবাদিক দের উপর হামলা চালায়।যার ফলে এক সাংবাদিক আহত হয়েছে। ওই ঘটনার পর পুলিশ বাধ্য হয় এলাকা থেকে ফিরে আসতে। পুলিশের পাশাপাশি তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থক রবীন্দ্রনাথ শাসমলের বাড়িতে বিজেপি কর্মীরা ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় বলে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। তবে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ফিরে আসার পর পার্শ্ববর্তী গ্রামগুলোতে ব্যাপক হামলার ঘটনা ঘটছে বলে অভিযোগ করেছেতৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপি এলাকায় সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে বলে এলাকার বিধায়ক বিক্রম প্রধান অভিযোগ করেন।তিনি বলেন গ্রাম্য বিবাদকে নিয়ে কুশমী গ্রামে পবন জানা নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সেই ঘটনাকে রাজনৈতিক বলে দিলীপ ঘোষ উস্কানি দিচ্ছে যার ফলে শনিবার পুলিশ গাড়ি ভাঙচুর করে পুলিশ কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে তেমনি তৃণমূল কংগ্রেসের এক কর্মীর বাড়িতে বিজেপি কর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন ।তবে তিনি দলীয় কর্মীদের এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য আহ্বান জানান।

শেয়ার করুন