দীঘায় পর্যটকদের জন্যে হোটেল খুলতেই বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা পূর্ব মেদিনীপুর:– পর্যটকদের জন্যে হোটেল খুলতেই বিক্ষোভ দেখালেন স্থানীয় গ্রামবাসী মহিলারা। করোনা সংক্রমন এর মধ্যেই সারা দেশের সাথে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত শহর দিঘা, মান্দারমনি প্রমুখ সৈকত শহরে হোটেল মালিকেরা পর্যটকদের জন্যে দরজা খুলে দেন।
এর পরেই দিঘা তে হোটেল মালিকদের এই উদ্যোগের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামলো স্থানীয় বাসিন্দারা।
বুধবার বিকেলে দিঘা শঙ্করপুর হোটেলিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভায় মারণ ভাইরাস করনা সংক্রমনের ভয়ের আবহের মধ্যেই বৃহস্পতিবার থেকে দিঘার হোটেল গুলি খোলার সিদ্ধান্ত হয়।সেই মত গতকাল খুলে হোটেল। এক জন দুই জন করে পর্যটকেরা আসতে শুরু করেন সৈকত শহরে। এর ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই শুক্রবার আন্দোলনে নামলো এলাকার বাসিন্দারা। এ দিন হোটেল মালিকেরা দরজা খুলতেই স্থানীয় আরাধনা নারী কল্যান সমিতির নেতৃত্বে মহিলারা আন্দোলনে নামেন। হোটেলের দরজায় দরজায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। মহিলাদের আন্দোলনের সামনে কয়েকটি হোটেল তাড়াতাড়ি দরজা বন্ধ করেন। পর্যটকদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান তারা। আন্দোলন কারী মহিলারা জানিয়ে ছেন বাহিরের থেকে আসা পর্যটকেরা দিঘায় এলে স্থানীয় বাজারে এলাকায় ঘুরবে। তার থেকে করোনা সংক্রমনের আশংকা থেকে যায়। তাই অবিলম্বে পর্যটক দের দিঘায় আসা বন্ধ করতে হবে আগামী এক মাস দিঘা কিংবা অন্যান্য সৈকত শহর পর্যটকদের জন্যে খোলা যাবেনা বলে তাঁরা দাবী জানিয়েছেন।
মহিলাদের এই আন্দোলনের বিষয়ে প্রশাসন ও হোটেল মালিকদের পক্ষ থেকে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

শেয়ার করুন