নদীয়ায় চাকরির দাবিতে রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নামলেন প্রাথমিক টেট উর্ত্তীন্ন চাকরি প্রার্থীরা


নিজস্ব সংবাদদাতা নদীয়া:নদীয়া কৃষ্ণনগর আবারো চাকরির দাবিতে রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নামলেন প্রাথমিক টেট উর্ত্তীন্ন চাকরি প্রার্থীরা গোটা জেলার পাশাপাশি নদীয়া জেলা তেও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নামলেন টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা। এই দিন কৃষ্ণনগর গভমেন্ট কলেজের মাঠ থেকে একটি রেলি বের করেন এবং রেলি করে বর্ণপরিচয় ভবনে আসে বর্ণপরিচয় ভবন অফিসের সামনে দীর্ঘক্ষন ধরে বিক্ষোভ দেখান এবং একটি লিখিত স্মারকলিপি জমা করেন প্রাইমারি চাকরি প্রার্থীরা ।2015 সালে প্রাথমিক টেট উত্তীর্ণ হয়েও চাকরি পাননি এমনটাই দাবি তাদের। মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছিলেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের নিযুক্ত করার পর যাদের প্রশিক্ষণ নেই তারা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব যদি প্রশিক্ষণ নেয় তাদের কেউ নিযুক্ত করা হবে।সেই ক্ষেত্রে শিক্ষা পর্ষদ এই দাবিকে নস্যাৎ করে দিয়ে বেআইনিভাবে প্রশিক্ষণবিহীন একাধিক প্রার্থীকে নিযুক্ত করেছেন এমনটাই অভিযোগ চাকরিপ্রার্থীদের।তাদের দাবি অনেক চাকরি প্রার্থী রয়েছেন যাদের সরকারি চাকরির বয়স 40 বছর পূর্ণ হয়ে গেছে। তারা পরবর্তী কোন সরকারি চাকরির পরীক্ষাতে বসতে পারবেন না। বারংবার আন্দোলন বা বিক্ষোভের মাধ্যম দিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের দ্বারা জানালেও সরকারিভাবে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না রাজ্য সরকার। তারা আরও জানালেন পরবর্তী সময় আত্মহত্যা ছাড়া কোন উপায় দেখছেন না তারা। তারা আরও জানালেন এর আগেও অনেক কয়েকজন চাকরি প্রার্থী যারা বিএড প্রশিক্ষণের জন্য ঋণ নিয়েছিলেন সেই ঋণ পরিশোধ না করতে পেরে অনেকেই আত্মহত্যা করেছে। এখনো অনেকেই রয়েছেন বিএড প্রশিক্ষণের জন্য ঋণ নিয়েছিলেন তারা আগামী দিন কি করবেন কি করে সেই ঋণ পরিশোধ করবেন ?আগামী দিন সেইসব চাকরিপ্রার্থীরা কি করবেন এটাই চিন্তার বিষয় । তারা জানান তাদের দাবি পূরণ না হলে তারা আমরণ আন্দোলনের পথে নামবেন কারণ এছাড়া কোন উপায় দেখছেন না তারা। অবিলম্বে তাদের কে নিযুক্ত করতে হবে নচেৎ আগামী দিন তারা রাজ্যজুড়ে বৃহত্তর আন্দোলনে সামিল হবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা।

শেয়ার করুন