প্রকাশ্যে দাঁতন থানা আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর:-
শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাঁতন এক নম্বর ব্লকের চক ইসমাইলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কুশমী গ্রামে গিয়ে প্রতিবাদ সভায় একথা বলেন বিজেপির রাজ্য কমিটির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। শনিবার কুশমী গ্রামে দলীয় কর্মী পবন জানার মৃতদেহ নিয়ে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে বিজেপি নেতারা জান। ওই গ্রামে বিজেপির পক্ষ থেকে এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয় । সেই প্রতিবাদ সভায় বিজেপির রাজ্য কমিটির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু প্রকাশে দাঁতন থানা আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। তিনি বলেন আপনারা ৬ মাস সময় দিন পুলিশকে আমরা বুঝিয়ে দেবো। যদি আর কোন দলীয় নেতাকর্মী দাঁতনে আক্রান্ত হয় তাহলে দাঁতন থানা জ্বালিয়ে দেব সরাসরি সায়ন্তন বসু হুমকি দেন। তিনি বলেন কাউকে রেয়াত করা হবে না। তিনি অভিযোগ করে বলেন পুলিশ যদি সজাগ থাকতো তাহলে পবন জানার মতো দলীয় কর্মীকে তৃণমূল কংগ্রেসের গুন্ডা বাহিনীর হাতে খুন হতে হতো না। এখনো সময় আছে যদি পুলিশ কর্মী ও আধিকারিকরা শুধরে না নেন তাহলে তাদের কপালে অনেক বিপদ আছে। 2021 সালে বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় আসবে তখন আমরা সুদে-আসলে হিসাব বুঝেনেব। দাঁতন থানা জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকির ঘটনায় রাজনৈতিক মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। সান্তনু বসুর ওই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল কংগ্রেসের দাঁতন এক ব্লকের সহ-সভাপতি প্রতুল দাস বলেন তৃণমূল কংগ্রেস হিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না, তৃণমূল কংগ্রেস উন্নয়ন চায়, সেই শান্তি ও উন্নয়ন কে স্তব্দ করার চেষ্টা করছে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও সায়ন্তন বসুর মতো বিজেপি নেতারা। তারা গ্রামে গ্রামে গিয়ে মানুষকে উস্কানি দিচ্ছে যার ফলে এই ঘটনা ঘটছে। তিনি বলেন দাঁতন থানা যারা জ্বালাতে আসবে মানুষ তাদের জ্বালিয়ে দেবে ।কারণ আমরা হিংসায় বিশ্বাস করিনা সন্ত্রাসে বিশ্বাস করি না আমরা চাই শান্তি ও উন্নয়ন। যারা এলাকায় সন্ত্রাস করছে তাদের মানুষ আগামী দিনে উপযুক্ত জবাব দেবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন