বাঁকুড়ায় ঘুমন্ত স্ত্রীকে হত্যার পর আত্নহত্যার চেষ্টা স্বামীর


নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ পারিবারিক অশান্তির জেরে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীকে মুগুর মেরে খুন করে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করশো স্বামী। মৃতার নাম দুর্গা বাউরী (৪৮)। বাঁকুড়ার ওন্দা থানা এলাকার মৌচুড়া গ্রামের বাউরী পাড়ার ঘটনা।
স্থানীয় সূত্রে খবর, মৌচুড়া গ্রামের বাউরী পাড়ার নিতাই বাউরীর সঙ্গে তার স্ত্রী দুর্গা বাউরীর প্রায়শই ঝামেলা হতো। শনিবার রাতে দুর্গা বাউরী বাড়িতে যখন ঘুমিয়েছিলেন তখন তার স্বামী নিতাই বাউরী তাকে মুগুর দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে নিতাই বাউরী বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। মায়ের কাছে শুয়ে থাকা দুর্গা বাউরীর এক বিবাহিতা মেয়ের চিৎকারে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও পাড়া প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। ঘটনাস্থলেই ততোক্ষণে মৃত্যু হয়েছে ঐ মহিলার। অন্যদিকে অভিযুক্ত স্বামী নিতাই বাউরী তখন বেপাত্তা। পরে বাড়ি থেকে দু’কিলোমিটার দূরে জমি থেকে নিতাইকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। সে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলে এলাকাবাসীর দাবী। বর্তমানে নিতাই বাউরী বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
খবর পেয়ে গ্রামে যায় ওন্দা থানার পুলিশ। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
মৃতার দেওর বাপী বাউরী বলেন, দাদা কোন কাজ করতোনা। বৌদির রোজগারেই সংসার চলতো। এনিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রায়শই ঝামেলা হতো। এমনকি তার বৌদিকে দাদা সন্দেহ করতো বলেও তিনি জানিয়েছেন। কিন্তু কি করে এই ধরণের ঘটনা ঘটলো তিনি বুঝে উঠতে পারছেননা বলে জানান।

শেয়ার করুন