মেদিনীপুরে সম্মিলিত মৎস্য চাষে বেড়িবাধ নির্মানে নিয়ে সংশয়


নিজস্ব সংবাদদাতা পূর্ব মেদিনীপুর : কয়েক দিন আগেই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট ব্লকের নহলা গ্রামের একটি ভেড়িবাধ নির্মাণ কে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা, দুই পক্ষকে সামাল দিতে পুলিশ প্রশাসন হিমশিম হয়ে উঠেছে। ওই চাষীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে। এলাকায় কোন রকমে ধান চাষ হচ্ছেনা ৷ দিনের পর দিন ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে চাষ করলেও চাষ থেকে তেমনভাবে অর্থ উঠে আসছে না। তাই এলাকার ৬০ জন চাষী একত্রিত হয়ে অব শেষে মাছ চাষ করার ভেড়িবাধ তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেন ৷ কিন্তু ভেড়িবাধ দিতে গেলে চারজন ব্যাক্তি এতে বাধা দিয়ে আসছে ৷ তাদের জন্যই হচ্ছে ভেড়ি তৈরীর কার্যক্রম সম্পন্ন হচ্ছেনা ৷ চাষী মৃত্যুঞ্জয় বাবু বলেন, কুড়ি বছরের ধরে ওই এলাকায় চাষ করে আসছি, অথচ আসল টাকা উঠতে হিমশিম খেতে হয় আমাদের, তাই বাধ্য হয়ে সমস্ত চাষী একজোট বেঁধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এলাকায় মাছের চাষ হলে এলাকার উন্নয়ন ঘটবে। সেই সঙ্গে এলাকার চেহারা পাল্টে যাবে’, তবে এই ঘটনার পর গোটা এলাকা কার্যত থমথমে রয়েছে।
কোলাঘাটের বিডিও কোলাঘাটের ওসির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, দুই পক্ষকে নিয়ে বসা হবে। কোলাঘাটের বিধায়ক ইব্রাহিম আলী চাষিদের সঙ্গে কথা বলেছেন। কি ভাবে সমস্যার জট কাটানো যায় সে বিষয়ে দেখছেন তিনি ৷ আগামী দিনে কি এই জট মিটবে তা নিয়ে সংশয় দেখা গিয়েছে অনেকের মধ্যে।

শেয়ার করুন