রাজ্যের সুবিধা বঞ্চিত পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কংগ্রেসের ডেপুটেশন

ঝাড়গ্রাম:-কোভিড ১৯ পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু পরিযায়ী শ্রমিক আমাদের রাজ্যে ফিরে এসেছে। রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী যার সংখ্যা প্রায় ১১লক্ষ। এই শ্রমিকেরা বর্তমানে কত হীন অবস্থায় এক অসহনীয় জীবন যাপন করছে। ইতিমধ্যে বিগত জুন মাসে কেন্দ্রীয় সরকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যােজনা প্রকল্পে এই সব পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য পঞ্চাশ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। যে জেলায় ২৫০০০ হাজার বা তার বেশি পরিযায়ী শ্রমিক ফেরৎ এসেছে, সেই সমস্ত জেলা এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত হবে। ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের১৬ – টি জেলা এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত হয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুর্ভাগ্যের বিষয়, আমাদের রাজ্যের মাননীয়া মুখাম্ত্রী সম্পূর্ণ ইচ্ছাকৃতভাবে রাজ্যের একটি জেলাকে এখনো পর্যন্ত এই প্রকল্পের আওতাভূক্ত করেনি । তাই সরকারের উদাসীনতা ও রাজনৈতিক অভিসন্ধির কারণে পশ্চিমবঙ্গের লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক প্রধানমন্ত্রী গরিব কলা যোজনা প্রকল্পের সুবিধালাভ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এমতাবস্থায়, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস,আজ গোপীবল্লভপুর-২ নং ব্লক কংগ্রেস কমিটির উদ্যোগে গোপীবল্লভপুর-২ বিডিও অফিসে ডেপুটেশন দিল।ঝাড়গ্রাম জেলার সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিককে প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ যোজনা প্রকল্পে অন্তর্ভূক্ত করার দাবিতে আজকে এই ডেপুটেশন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।আজকের এই কর্মসূচি তে ঝাড়গ্রাম জেলা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক তথা প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সদস্য প্রসেনজিৎ দে, ঝাড়গ্রাম জেলা কিষাণ কংগ্রেসের সভাপতি সৌরভ ঘোষ, জেলা যুব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চ্যাটার্জী, জেলা কংগ্রেস নেতা ভবেশ মাহাতো, উত্তর পাঁজা, তারাপদ মন্ডল সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।এ ছাডাও নায়াগ্রাম, সাঁকরাইল, গোপীবল্লভপুর-১ নং ব্লকেও একই দাবিতে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ডেপুটেশন দেওয়া হয় বিডিও অফিসে।

শেয়ার করুন