রাস্তার বেহাল দশা নিয়ে ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা,প্রায় দেড় ঘন্টা ধরে চললো পথ অবরোধ

মালদা: দীর্ঘদিন ধরে রাস্তার বেহাল দশা | রাস্তার বেহাল অবস্থার জন্য চরম ভুগান্তি হচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দাদের| তারই প্রতিবাদে আজ মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর এক নম্বর ব্লকের কুশিদা গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হরিশ্চন্দ্রপুর-কুশিদাগামী রাজ্য সড়ক প্রায় দেড় ঘন্টা ধরে অবরোধ করে রাখে সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা | উল্লেখ্য জয়বাংলা থেকে ভগবানপুর হয়ে বীজট গ্রাম পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার রাস্তা দীর্ঘদিন ধরেই খুব খারাপ হয়ে আছে কিন্তু বারবার পঞ্চায়েতকে বলেও হয়নি কোনো কাজ হয়নি | আর বর্তমানে বর্ষার কারণে এই রাস্তা মানুষের পায়ে হেটে যাওয়ার জন্যেও অযোগ্য হয়ে পড়েছে| গ্রামের ছেলেমেয়েদের এই রাস্তা পার করেই যেতে হয় স্কুল,স্থানীয় রেশন ডিলারের কাছে যেতেও মানুষকে এই রাস্তায় ব্যবহার করতে হয় ফলে মানুষের ভুগান্তি চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে,কিন্তু নির্বিকার স্থানীয় পঞ্চায়েত- প্রশাসন| দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তার বেহাল অবস্থার ফলে গ্রামে ঢুকতে পারে না অ্যাম্বুলেন্স,ফলে প্রসূতি এবং রুগীদের চরম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের|

স্থানীয় বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম বলেন এর ফলে অনেক মুমুর্ষ রুগী এবং প্রসূতির মৃত্যু পর্যন্ত ঘটছে| তিনি আরোও বলেন অন্য যানবাহন তো দূরের কথা মানুষের সাইকেল নিয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা নেই এতো খারাপ রাস্তা | প্রায় কুড়িটির বেশি গ্রামের মানুষকে এই রাস্তা দিয়েই যাতায়াত করতে হয়, তারা প্রত্যেকেই প্রচন্ড অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে| তাদের এতো সমস্যা দেখেও প্রশাসনের নির্বিকার থাকা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি এবং বলেন এতদিন ধরে বলেও কাজ হচ্ছে না তাই আজ অবরোধ করলাম আমরা গ্রামবাসী মিলে এবং ভবিষ্যতে কাজ না হলে আরো বৃহত্তর আন্দোলনে আমরা নামবো এবং ভোট বয়কট করবো |

আরেক বাসিন্দা নার্গিস এক বধূও ওই একই অভিযোগ করেন এবং ভোট বয়কটের হুমকি দেন|

আরেক বাসিন্দা রেজাউল হক বলেন স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনে বলেন ওনাকে রাস্তার কাজের জন্য বলা হলে তিনি বলেন পঞ্চায়েতের সব টাকা করোনার জন্য নিয়ে চলে গেছে,এমনকি পঞ্চায়েতের প্রধান থেকে সদস্যের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও তিনি এনেছেন| ভগবানপুরের সকলেই অবিলম্বে রাস্তার কাজ না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন|

কুশিদা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান আত্তারি বিবি কে প্রশ্ন করা হলে তিনি ক্যামেরার সামনে কোনো মন্তব্য করতে চাননি |

এ বিষয়ে জেলাপরিষদের শিশু,নারী এবং ত্রাণ কর্মাধক্ষ্যা মর্জিনা খাতুন বলেন রাস্তার অবস্থা সত্যি খারাপ এবং মানুষের প্রতিবাদ করার অধিকার আছে| আমি জেলা শাসকের কাছে আবেদন জানাবো যাতে অতি দ্রুত রাস্তার কাজ করা সম্ভব হয়| তিনি আরোও বলেন এই রাস্তার কাজটি বড়ো কাজ হওয়ার ফলেই স্থানীয় পঞ্চায়েতের পক্ষে করা সম্ভব হয়নি |

শেয়ার করুন