লকডাউন এর দ্বিতীয় অধ্যায় এ আরও কঠিন আসানসোল পুলিশ

পশ্চিম বর্ধমান :
২২ মার্চ থেকে সারা দেশ জুড়ে শুরু হয়েছিলো লকডাউন, দেখতে দেখতে প্রথম পর্ব অতিক্রান্ত হওয়ার পর আবারও নূতন করে ৩ মে অবধি বাড়ানো হয়েছে। ৩ মে পর্যন্ত করার কারণ করোনা কে হারানো। কিন্তু কিছু মানুষ আছেন যারা এখনো মানতে পারছে না লকডাউন। মারণ ভাইরাস করোনার প্রকোপের জেরে সবাই কে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার একজোট হয়ে প্রত্যেক মানুষ কে গৃহবন্দী থাকার নিধান দিয়েছেন , সেই নিয়ম কে লঙ্ঘন করে কিছু মানুষ উদ্দেশ্যহীন ভাবে বাইরে ঘোরাঘুরি করছেন ,এরকম চিত্র আসানসোল শহর ও ব্যতিক্রম নয় , যেখানে আসানসোল শহর থেকে পৌরনিগম ও প্রশাসন যথেচ্ছ ভাবেও প্রচার ও চালিয়ে যাচ্ছে।ও মানুষের মনে সুবুদ্ধি আনার চেষ্টা করছে।কিন্তু কিছু মানুষের সুবুদ্ধি আনতে হিমশিম খেতে হচ্ছে পুলিশ কে, যেখানে বলা হয়েছে প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র কেনা ছাড়া লকডাউন এর মেয়াদকাল পর্যন্ত নিজেকে গৃহবন্দী রেখে নিজেকে , নিজের পরিবার কে তথা এই শহর কে এই মারণ ভাইরাস এর প্রকোপ থেকে সুরক্ষিত রাখুন , তাও মানুষ জন অকারণে বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন , মানুষজনের অকারণে ঘোরাঘুরি বন্ধ করতে শক্ত হাতে মাঠে নামলো প্রশাসন প্রত্যেক রাস্তার মোড়ে মোতায়েন করা দায়িত্ব রত পুলিশ কর্মীরা শুরু করেছেন জিজ্ঞাসাবাদ কেনো ও কি কারণে বাইরে বেড়িয়েছেন, লকডাউন এর দ্বিতীয় অধ্যায় এ পৌছে আরোও কঠোর আসানসোল পুলিশ প্রশাসন , প্রত্যেক রাস্তার মোড়েই চলছে জিজ্ঞাসাবাদ , বহুলাংশে দিনে দিনে কমেছে অকারণে মানুষের বাইরে বেরনো । লকডাউন এর শেষ দিন পর্যন্ত এই অবস্থা থাকলে আশা করি সবার প্রচেষ্টা সফল হবেই ।

শেয়ার করুন