লাদাখে ২০ জন ভারতীয় সেনার শহীদ হওয়ার প্রতিবাদে সামিল সাধারণ মানুষ

সঞ্জয় কাপড়ী পূর্ব মেদিনীপুর:– লাদাখে ২০ জন ভারতীয় সেনার শহীদ হওয়ার প্রতিবাদে এবার পথে নামল ভারতের সাধারণ মানুষ। সোমবার রাতে পূর্ব লাদাকের গালওয়ান উপত্যকায় চীন ও ভারতের সংঘর্ষ শহীদ হন ২০ জন ভারতীয় সেনা। যার ক্ষোভে বুধবার রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম ১ ব্লকের ভেকুটিয়া এলাকার সাধারণ মানুষ। উল্লেখ্য, বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাসের আবিষ্কারের পেছনেও চীনের হাত রয়েছে। যার জন্য বর্তমানে ভারতবর্ষে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে অবশ্য ভারতীয়দের তরফ থেকে সমস্ত চীনা দ্রব্য বয়কট করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আর এর মাঝেই চীন ও ভারতের সংঘর্ষে শহীদ হন কুড়ি জন ভারতীয় সেনার। আর সেই ঘটনায় এখন গোটা দেশ জুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আর এই ক্ষোভে বুধবার সকালে জেলার নন্দীগ্রাম ১ ব্লকের ভেকুটিয়ার শ্রীহরিমোড় এলাকায় রাস্তার ওপর টায়ার জ্বালিয়ে চীনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষজন। শহীদ জাওয়ানদের শান্তি কামনায় এক মিনিট নীরবতা পালন করেন তারা। যেভাবে ভারতের উপর চীনের অত্যাচার বেড়ে চলেছে তাতে আগামী দিনে চীনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন। যার ফলে একঘেয়ে হয়ে পড়বে গোটা চীন। স্থানীয় বাসিন্দা সীতাপতি জানা বলেন, “চীন আমাদের থেকে কোটি কোটি টাকা মুনাফা লুটছে। কিন্তু সেই চিহ্ন অযৌক্তিক ভাবে ভারতের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই আমরা আজ থেকে সমস্ত চিনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দিলাম। সব মিলিয়ে বলা চলে লাদাখের ভারতীয় সেনা জওয়ান শহীদ হওয়ার ঘটনায় এখন ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। এমন পরিস্থিতিতে চীনকে একঘেয়ে করে তোলার জন্য ইতিমধ্যে চিনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন ভারতের সাধারণ মানুষ।

শেয়ার করুন