শান্তিপুর নিষিদ্ধপল্লীর যৌনকর্মীদের খাবার বিতরণ

প্রসেনজিৎ প্রামাণিক, নদীয়া:সংক্রামক করোনার আতংকে সমাজের মঙ্গলার্থে নিজেদের রুজি রোজগার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতার সোনাগাছি সহ বেশ কিছু এলাকা। কিন্তু তাতেও প্রশ্ন থেকেই যায়, যদি বলেন নিজের স্বার্থে এই সিদ্ধান্ত? প্রশ্ন থেকে যায় অনেক। এইচআইভি,পক্স, ইনফ্লুয়েঞ্জা, হাম, ডায়রিয়া সহ একাধিক রোগ বহন করে নিষিদ্ধপল্লীর বিছানা। “করোনা” সংক্রামন তো আরো চিন্তার।
যারা শুধু ছেলেদের ভোগ বিলাশের প্রয়োজনে, নিজের পেটের জ্বালায় দেহ ব্যবসা করে,তারাও তো মানুষ।
সামাজিক দায়বদ্ধতায় শুধুমাত্র মানবিক কারণে নিজেদের রুজি রোজগার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখতে হচ্ছে শান্তিপুর মালোপাড়া সংলগ্ন দুর্বার মহিলা সমিতির সদস্যাদের। বেশ কয়েকজনের সঞ্চিত অর্থ কিছুই নেই ,যা দিয়ে তারা আগামীতে নূন্যতম দুবেলা খেয়ে পরে বাঁচতে পারে। ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য রোজগার বন্ধ যৌনকর্মীদের। অনেকেরই জুটছে না অন্ন। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার পক্ষ থেকে আজ ৩০০ জন যৌনকর্মীর মধ্যে ৪৫ টি পরিবারকে দেওয়া হলো চাল,ডাল,আটা,আলু,সোয়াবিন,তেল,নুন ও মাস্ক। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে,পুরো এলাকা স্যানিটাইজিং করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করবেন তারা।

শেয়ার করুন