সবং এ বিজেপি-সিপিএম ছেড়ে ৩০০ জনের তৃণমূলে যোগদান

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুর:-
পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং ব্লকের সবং,নওগাঁ,মোহাড় গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ৩০০ জন বিজেপি ও সিপিএম দল ছেড়ে যোগ দিলেন তৃণমূলে। 
শনিবার দুপুরে সবং এর শহীদ অনাথ বন্ধু পাঁজা অডিটোরিয়ামের মাঠে তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিলেন তৃণমূল সাংসদ মানস ভুইঁয়া , তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি । উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক গীতারানী ভুইঁয়া , ব্লক সভাপতি অমল পান্ডা , ব্লক যুব সভাপতি আবু কালাম বক্স।
যোগদান পর্বে মানস ভুইঁয়া জানান , সবং এর মাটি বরাবরই বাম বিরোধী রাজনৈতিক দলের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। তিনি দীর্ঘ ৪৭ বছর ধরে এখানে বাম বিরোধী রাজনীতি করে আসছেন । এখানকার মানুষও বাম বিরোধী শক্তির উপর ভরসা রেখে আসছেন । 
তিনি তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর এখানকার বিধায়ক তৃণমূলের । ১৩ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ১০ টি গ্রাম পঞ্চায়েত ও সবং পঞ্চায়েত সমিতি তৃণমূলের দখলে। 
মানুষ ভরসা রেখেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি র উপর। 
জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত একের পর এক ৫৭ টি জনমুখী প্রকল্প চালু করে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন মানুষের পাশে থেকে তাঁদের উন্নয়ন করাই তাঁর একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।
এ রাজ্যের বিজেপি , কংগ্রেস , সিপিএম যতই চেষ্টা করুক মানুষের মন থেকে এই উন্নয়নের কান্ডারী কে সরিয়ে দিতে পারবেন না। 
যতই বিরোধীরা কুৎসা করছেন ততই তৃণমূল শক্তিশালী হচ্ছে। আগামী দিনে আরো হবে। 
এদিন মোহাড়ের বিজেপি নেতা লালমোহন ভুইঁয়া প্রায় ১০০ জন বিজেপি কর্মী সমর্থক নিয়ে তৃণমূলে যোগ দেন। 
তিনি জানান , যে নীতি ও আদর্শ মেনে তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিজেপি করছেন এখনকার নেতারা সেই নীতি আদর্শ থেকে সরে আসছেন। সব কিছুই দু থেকে তিনজন রাজ্য নেতা ঠিক করে দিচ্ছেন । তাঁদের মতো নিচু তলার নেতা কর্মীদের কোনও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না । শুধুই বলছেন ভোট করিয়ে দাও।
তৃণমূলকংগ্রেসের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি জানান , বিজেপির নৌকা ফুটো হয়ে গেছে। বিজেপি নেতা কর্মীরা বুঝতে পারছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এর উপর তাঁরা আর ভরসা রাখতে পারছেন না। তাঁরা মমতা ব্যানার্জির উন্নয়নে কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে তৃণমূলে আসছেন । দিলীপ বাবু যেখানকার সাংসদ সেই মেদিনীপুরে বিজেপি করার লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না।

শেয়ার করুন