হাওড়ার সাঁকরাইলে উদ্বোধনের আগেই ভেঙে পড়ল নির্মীয়মান শ্মশানঘাট

নিজস্ব সংবাদদাতা,হাওড়াঃ
রবিবার সদর হাওড়ার সাঁকরাইল থানার অন্তর্গত গঙ্গার নদীর তীরবর্তী হীরাপুর গ্রামে নির্মীয়মান শ্মশানের চুল্লি সহ যাত্রী প্রতিক্ষালয়টি হঠাৎই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। উদ্বোধনের আগে কী কারনে শ্মশানটি এভাবে ভেঙে পড়ল তা খতিয়ে দেখতে ঘটনাস্থলে পৌঁছন স্থানীয় ব্লক প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা। তাদের দাবি -” খবরটা সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের দ্বারা পেয়ে দেখতে এলাম। তদন্ত শুরু হয়েছে সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিষয়টা নিয়ে উদ্ধর্তন কর্তাদের সাথে কথাবার্তা হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে দেখে মনে হচ্ছে গঙ্গার ভাঙনের ফলে এই বিপত্তি।

রাজ্য সরকারের “বৈতরনী” প্রকল্পে কয়েক লক্ষ টাকা ব্যয়ে চলছিল শ্মশান নির্মাণের প্রক্রিয়া। উদ্বোধনের আগেই এভাবে ভেঙে পড়ায় ঠিকাদার সংস্থার বিরুদ্ধে গাফলতির অভিযোগে সরবহন স্থানীয় বাসিন্দারা। অত্যন্ত নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজের অভিযোগে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। তাদের আরও দাবি সরকারের নজরদারির অভাবে পরিকল্পনাহীন ভাবে শ্মশানটি নির্মাণ করার ফলে এই বিপত্তি।

অপরদিকে হাওড়া জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য নন্দলাল মুখার্জী বলেন -“জনগণের টাকা এভাবে নয়ছয় হচ্ছে তার দায় কে নেবে?প্রশাসনের কর্তারা বলছেন গঙ্গার ভাঙনের ফলে তলিয়ে ভেঙে পড়েছে। এভাবে পরিকল্পনাহীন ভাবে সরকারি পয়সার যথেচ্ছ অপ্রচয়ের জন্য কী তাহলে সরকারি আমলাদের মদত আছে শাসক দলের প্রতি। আমি সমস্ত প্রক্রিয়ার দ্রুত তদন্ত করে দোষীদের শাস্তির দাবি করছি এবং দ্রুততার সাথে আবার নতুন করে চুল্লি নির্মাণের দাবি রাখছি। আমার সরকার থাকা শাসকদল তার সৎইচ্ছা দেখিয়ে দোষীদের শাস্তি দেবে।

শেয়ার করুন