হাতি আক্রমন রুখতে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে গরুর মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুর:- হাতির পালের হাত থেকে নিজের চাষ জমি কে বাঁচাতে অবৈধভাবে নিজের জমির চারদিকে বিদ্যুতের তারের বেড়া দিয়েছিলেন এক কৃষক। গ্রামবাসীদের না জানিয়ে ওই কাজ করেছিলেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার সময় ওই জমির পাশ দিয়ে ফেরার পথে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল একটি গরুর। গরুকে বাঁচাতে গিয়ে অল্প জখম হয়েছেন গরুর মালিক মনিন্দ্র নাথ মাহাতো। ক্ষুব্দ গ্রামবাসীরা রাতেই অভিযোগ করলেন বিদ্যুৎ দপ্তরে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি ব্লকের নোনাসোল এলাকাতে।নোনাসল গ্রামের বাসিন্দারা জানিয়েছেন,স্থানীয় এক গ্রামের বাসিন্দা বিকাশ মাহাতো নিজের চাষ জমিতে হাতির পালের হাত থেকে রক্ষা করতে সেচের বিদ্যুৎ লাইন থেকে অবৈধভাবে লাইন সংযোগ করে নিজের জমির চারদিকে জি আই তারের বেড়া দিয়েছিলেন। পুরো জমিটি কে বিদ্যুতের বেড়া দিয়ে ঘিরে ছিলেন। যা গ্রামবাসীদের জানাননি। অজ্ঞাতে ওই রাস্তা দিয়ে চাষের কাজ সেরে ফিরছিলেন গ্রামের বাসিন্দা মনিন্দ্র নাথ মাহাতো।গরু নিয়ে ফেরার সময় একটি গরু কোন ভাবে তারে মুখ লাগিয়ে দেয়। তখনই তাকে আটকে দেয় বিদ্যুতের তার। গরুটিকে ছটপট করতে দেখে তাকে টেনে সরানোর চেষ্টা করেছিলেন মনীন্দ্রনাথ বাবু। বিদ্যুতের ঝটকা লেগে তিনি অনেক দূরে পড়ে যান। বুঝতে পারেন কি ঘটেছে। তবে যতক্ষণে গ্রামবাসীদের ডেকেছিলেন ততক্ষণে মৃত্যু হয় গরুর। এই ঘটনার পর ক্ষোভ উগরে দেন গ্রামবাসীরা বিকাশ মাহাতোর বিরুদ্ধে। রাতেই বিদ্যুৎ দপ্তরে অভিযোগ জানান তারা। জানানো হয়েছে শালবনী থানার পুলিশকেও। ঘটনার পর থেকে গা-ঢাকা দিয়েছেন বিকাশ মাহাতো।গত কয়েক মাস ধরেই নোনাসোল সংলগ্ন জঙ্গল এলাকাতে দলমা ও ময়ূরঝর্নার হাতির পাল তান্ডব করে চলেছে। ব্যাপক ক্ষতি করছে চাষের জমিতে। তা থেকেই চাষ বাঁচাতে এই উদ্যোগ নিয়েছিল বিকাশ মাহাতো।

শেয়ার করুন