বিহারে নবনির্বাচিত শিক্ষামন্ত্রীকে নিয়ে বিতর্কের জেরে পদত্যাগ

শুভজিৎ দত্তগুপ্ত:বিহারে নতুন সরকার গঠনের পর থেকেই ক্রমাগত বিতর্ক তৈরি হয়েছে নীতিশ কুমারের মন্ত্রিসভা নিয়ে। তার মন্ত্রিসভার সদস্য হিসাবে শপথ নেওয়া ১৪ জনের মধ্যে ৮ জনের বিরুদ্ধেই রয়েছে একাধিক ফৌজদারি মামলা রয়েছে। সবথেকে বেশী বিতর্ক তৈরী হয়েছে বিহারের নতুন শিক্ষামন্ত্রী মেওয়ালাল চৌধুরীকে নিয়ে। ভাগলপুর কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য প্রথমবারের মন্ত্রী মেওয়ালাল চৌধুরীর বিরুদ্ধে উপাচার্য থাকা কালীন ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিধি বহির্ভূতভাবে সহকারি অধ্যাপক এবং জুনিয়র বিজ্ঞানীদের নিয়োগের অভিযোগের পাশাপাশি ভবন নির্মাণেও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে । ২০১৭ সালে মেওয়ালালের গ্রেফতারির দাবিতে সরব হয়েছিলেন বিজেপি নেতা সুশীল মোদী,আন্দোলনে নেমেছিলো বিজেপি ।

বিহারের প্রধান বিরোধী দল আরজেডি ও এর সহযোগীরা বুধবার জেডি (ইউ) এর মেওয়ালাল চৌধুরীকে শিক্ষামন্ত্রী নিয়োগের জন্য মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে আক্রমণ করেছিলেন, তার পরেই দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত মেওয়ালাল চৌধুরীকে বরখাস্ত করছে তারদল জে ডি ইউ। পাশাপাশি সম্প্রতি মেওয়ালাল চৌধুরীর এক পুরনো ভিডিও নতুন করে শেয়ার করেছে আরজেডি। তাতে দেখা যাচ্ছে তিনি দেশের জাতীয় সঙ্গীতগাইতেও ভুলকরছেন তিনি ,যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়ব্যাপক সমালোচিত হয়েছেন তিনি।কিন্তু দুর্নীতির অভিযোগের পরে বিহারের শিক্ষামন্ত্রী মেওয়ালাল চৌধুরী চৌধুরী শপথ নেওয়ার মাত্র তিন দিন পরে পদত্যাগ করেছেন বলে জানার পর চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে শাসক শিবিরে কারণ তিনি ছাড়া ও নতুন শপথ নেওয়া নতুন মন্ত্রীদের মধ্যে বিজেপির ৪ জন, জেডিইউয়ের ২ জন, হিন্দুস্তান আওয়ামী মোর্চার ১ জন এবং বিকাশশীল ইনসান পার্টির একজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে।।




%d bloggers like this: