নির্বাচনের আগেই সংকটে জম্মু -কাশ্মীরের বিরোধী জোট

দিল্লি : অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিলের পর প্রথম নির্বাচনেই উপত্যকার রাজনীতিতে অভ্যন্তরীন বিবাদে জেরবার বিরোধী ঐক্য। গত বছরের আগস্টে অনুচ্ছেদ ৩৭০বাতিল করার পরে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে প্রথম বড় নির্বাচনী অনুষ্ঠিত হতে চলেছে জম্মু -কাশ্মীরে। ২০ টি জেলা উন্নয়ন কাউন্সিল (ডিডিসি) আট দফার নির্বাচনের ঘোষণা হওয়ার পরেই জাতীয় সম্মেলন, পিডিপি, পিপলস কনফারেন্স, সিপিআই (এম) এবং কংগ্রেস সহ বিজেপি বিরোধী মূলধারার রাজনৈতিক দলগুলি পিপলস অ্যালায়েন্স (পিএজিডি) গঠন করে একসাথে নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবার ঘোষণা করেছে ,কিন্তু তার পর থেকেই আসন সমঝোতার প্রশ্নে বারবার জটিলতার সম্মুখীন হয়েছে এই বিরোধী জোট। এবার নির্বাচনের আসন ভাগাভাগি নিয়ে মতবিরোধের পরে দল থেকে পদত্যাগ করলেন জোট শরিক পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মোজাফফর হুসেন বেগ,শোনাযাচ্ছে দলের প্রাথমিক সদস্যতা থেকেও ইস্তফা দিয়েছেন তিনি ।

দলীয় সূত্র থেকে জানাগেছে , গুপকর ঘোষণার অনুযায়ী পিপলস অ্যালায়েন্স (পিএজিডি) দ্বারা আসন বিতরণ, বিশেষত উত্তর কাশ্মীরের আসনগুলি বন্টন নিয়ে তার বিরোধিতা ছিলো ।

২৮ নভেম্বর থেকে শুরু হতে চলা জেলা উন্নয়ন কাউন্সিল (ডিডিসি) নির্বাচনের প্রথম দফার প্রার্থী তালিকা গত বৃহস্পতিবার প্রকাশ করেছিল পিপলস অ্যালায়েন্স (পিএজিডি) । প্রথমদফার কাশ্মীর উপত্যকার ২৭ টি আসনের মধ্যে এনসি একুশ টি ,পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (পিডিপি) চারটি ও সাজ্জাদ লোন নেতৃত্বাধীন পিপলস কনফারেন্সে (পিসি) দুটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

মোজাফফর হুসেন বেগের দলছাড়ার খবর প্রকাশ্যে আসারপর থেকেই বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে বিরোধী শিবিরে। সরাসরি এই বিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া না দিলেও পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (পিডিপি) এর সর্বোচ্চ নেত্রী মেহবুবা মুফতি টুইট করে দলীয় কর্মী সমর্থকদের দলীয় স্বার্থ ভুলে ক্ষুদ্র নির্বাচনী লাভের উর্দ্ধে উঠে জনগণের পরিচয় রক্ষার জন্য পিপলস অ্যালায়েন্স (পিএজিডি) কে সমর্থনের বার্তা দিয়েছেন। যদিও ১৯৯৯ সালে পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রতিষ্ঠার সময় থেকে দলের সাথে যুক্ত মোজাফফর হুসেন বেগ দলনেত্রী মেহবুবা মুফতিকে দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানানোর পর থেকেই লোকচক্ষুর অন্তরালে রয়েছেন ,এই বিষয়ে চেষ্টা করেও তার কোনো প্রতিক্রিয়া পায়নি সংবাদ মাধ্যম।

শেয়ার করুন