নেতাজীর জন্মদিনে মুখ্যমন্ত্রী মমতার জাতীয় ছুটি ঘোষণার আর্জি

কলকাতা: কেন্দ্রকে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় । ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোসের জন্মদিনকে জাতীয় ছুটি হিসেবে ঘোষণা করুক কেন্দ্র। এর আগেও অবশ্য এই নিয়ে দাবী উঠেছিল। কিন্তু কেন্দ্রের সায় ছিল না। ফরওয়ার্ড ব্লক ও সিপিএম অনেকবার কেন্দ্রকে জানিয়েছিল বিষয়টি। কিন্তু ইউপিএ জমানায় তা বাস্তবে পরিণত হয়নি। তাই আরও একবার চিঠি দিলেন প্রধানমন্ত্রীকে।
শুধু যে জন্মদিনে জাতীয় ছুটি, সেটা নয়। নেতাজী অন্তর্ধানের রহস্য এবার উন্মোচন করা হোক বলেও দাবী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
২০২২ সালে নেতাজির ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর আগেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বাংলার অন্যতম শ্রেষ্ঠ সন্তান সুভাষচন্দ্র বসু ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতীক।
মমতা লিখেছেন, ‘আপনি নিশ্চয় অবগত রয়েছেন নেতাজির ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর সূচনা হতে চলেছে ২০২২ সালের ২৩ জানুয়ারি। সুভাষ বসু আমাদের হৃদয়ে এক বিশেষ জায়গা জুড়ে রয়েছেন। তাঁর নেতৃত্বে আজাদ হিন্দ বাহিনীর হাজার হাজার সাহসী সেনানী মাতৃভূমির শৃঙ্খলমোচনে চরম আত্মত্যাগ করেছিলেন। দেশের সব প্রজন্মের কাছে তিনি অনুপ্রেরণার আলোকবর্তিকা। আমরা আবার আর্জি জানাচ্ছি, প্রকৃত অর্থে নেতাজির প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জ্ঞাপনে ২৩ জানুয়ারি জাতীয় ছুটি হিসেবে ঘোষিত হোক।’
প্রসঙ্গত সারা দেশে তিনটি দিনকে জাতীয় ছুটি হিসেবে গণ্য করা হয়-২৬শে জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবস, ১৫ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবস এবং ২রা অক্টোবর, মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন।
এই চিঠি প্রসঙ্গে নেতাজি সুভাষচন্দ্রের পৌত্র ও প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ সুগত বসু বলছেন, ‘যদি ২৩ জানুয়ারি জাতীয় ছুটি হিসেবে ঘোষিত হয়, তাহলে খুব ভালো। কিন্তু তাঁর জীবনাদর্শকেও শ্রদ্ধা করা ভীষণ প্রয়োজন। ধর্মনিরপেক্ষতার যে নিদর্শন তিনি দেখিয়েছেন, সেটা যেন পালন করা হয়। এই ঘোষণা নতুন প্রজন্মের কাছে এক বেশ ভালো দিক খুলে ধরবে।’

শেয়ার করুন