সালমান বিন হামাদ আল খলিফা বাহরাইনের নতুন প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত

বাহরাইন : প্রধানমন্ত্রী শেখ খলিফা বিন সালমান আল খালিফার মৃত্যুতে রাজকীয় বাহরাইনের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হলেন বাহরাইনের যুবরাজ (ক্রাউন প্রিন্স) তথা উপপ্রধানমন্ত্রী শেখ সালমান বিন হামাদ আল-খলিফা ।

বুধবার সকালেই বিশ্বের দীর্ঘতম সময়ের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা যুবরাজ খলিফা বিন সালমান আল-খলিফা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মায়ো ক্লিনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৮৪ বছর বয়সে মারা যান, একাত্তরে স্বাধীনতার পর থেকে এই পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। খলিফা বিন সালমান আল-খলিফা তাঁর পাঁচ দশকের দায়িত্ব পালনকালে বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব ছিলেন, সংস্কার বিরোধী এই শাসক দেশের শিয়া জনগোষ্ঠীর কাছে গভীরভাবে অপ্রিয় ছিলেন।২০১১ সালে শিয়া নেতৃত্বাধীন বিক্ষোভকারীরা যখন মানামার পার্ল স্কয়ারটি দখল করেছিল, সৌদি সমর্থিত সুরক্ষা বাহিনী দ্বারা বহিষ্কারের আগে, তাদের প্রধান দাবি ছিল যুবরাজ খলিফার পদত্যাগ করা।কিন্তু তাঁর উত্তরসূরি, শেখ সালমান বিন হামাদ আল-খলিফা পাশ্চাত্য-শিক্ষিত উপসাগরীয় নেতাদের একটি নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি , তিনি সর্বদাই বিরোধের পরিবর্তে বিরোধীদের সাথে সমঝোতার সেতু নির্মাণের চেষ্টা করেছেন।

সালমান বিন হামাদ আল খলিফা কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর সহ – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেনের অধ্যয়নের পরে প্রথম উপ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং বাহরাইন প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপ-সর্বোচ্চ কমান্ডার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।বাদশাহ হামাদ বিন ঈসা আল খলিফা বুধবার (১১ নভেম্বর) এক রাজকীয় অর্ডারে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সালমান বিন হামাদ আল খলিফার নাম ঘোষণা করেন।

তিনি সর্বপ্রথম ১৯৯৯ সালে ৯ মার্চ রাজ্যের যুবরাজ (ক্রাউন প্রিন্স) হিসেবে দায়িত্ব নেন। একই বছর ২২ মার্চ প্রতিরক্ষা বাহিনীর সর্বাধিনায়ক হন। ২০০৮ সালের জানুয়ারিতে সশস্ত্র বাহিনীর ডেপুটি সুপ্রিম কমান্ডার ও ২০১৩ সালের মার্চ মাসে প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

খলিফা বিন সালমান আল-খলিফার মৃত্যুতে বাহরাইনে এক সপ্তাহের সরকারী শোক অনুষ্ঠিত হবে, এই সময় রাষ্ট্রীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে এবং সরকারী মন্ত্রক এবং বিভাগগুলি তিন দিনের জন্য বন্ধ থাকবে।

শেয়ার করুন